ঈদে কেমন চলছে ট্রেনের শিডিউল

দিন বদল বাংলাদেশ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ বিকাল ০৩:১৪, মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৩, ৫ বৈশাখ ১৪২৯
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

দেশের বেশির ভাগ রেলপথই সিংগেল লাইনের। তাছাড়া তীব্র গরমে ট্রেনের গতি কম রাখতে হচ্ছে। এই দুই কারণে ট্রেনের সময়সূচিতে হেরফের হওয়ার আশঙ্কা করেছেন রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন নিজেই। গত রবিবার (১৬ এপ্রিল) কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে পরিদর্শনে গিয়ে তিনি যাত্রীদের ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয় নিয়ে যাত্রীদের ধৈর্য ধরারও আহ্বান জানান। তবে আশঙ্কা অনুযায়ী তীব্র না হলেও কিছুটা বিলম্বে ছাড়ছে ট্রেন।

ঈদ যাত্রার দ্বিতীয় দিনে মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে গিয়ে দেখা গেছে, ঢাকা থেকে ট্রেন ছাড়তে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। প্রথমদিন রাজশাহীগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস ২০ মিনিট বিলম্বে ছেড়েছে, দ্বিতীয় দিন তা ৪০ মিনিটে দাঁড়িয়েছে। ফলে পরবর্তী আন্তঃনগর ট্রেনগুলোও বিলম্বে ছাড়তে হচ্ছে।

এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষ বলছে, যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই ঈদে যাত্রায় দুই একটি ট্রেন সময় নিয়ে ছাড়া হচ্ছে। এছাড়া বাকি ট্রেন গুলো নির্ধারিত সময়েই গন্তব্যে উদ্দেশে রওনা দিয়েছে।

খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, মঙ্গলবার চট্টগ্রামগামী মহানগর প্রভাতী সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা স্টেশন ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও ট্রেনটিকে সকাল ৮টা ৪০ মিনিটে শিডিউল দেওয়া হয়। এছাড়া নীলফামারীগামী নীলসাগর এক্সপ্রেস ২০ মিনিট বিলম্বে ৮টায়; চট্টগ্রামগামী সোনার বাংলা এক্সপ্রেস ৫৫ মিনিট বিলম্বে ৮টা ১০ মিনিটে; কিশোরগঞ্জগামী এগারো সিন্ধুর প্রভাতী ৭টা ২০ মিনিটে এবং দেওয়ানগঞ্জগামী তিস্তা এক্সপ্রেস ১৫ মিনিট বিলম্বে ৭টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা স্টেশন ছেড়ে গেছে। অন্যদিকে সিলেটগামী পারাবত এক্সপ্রেস ৬টা ২০ মিনিটে তার নির্ধারিত সময়েই স্টেশন ছেড়েছে।

এ বিষয়ে ঢাকা রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক মাসুদ সারওয়ার বলেন, যাত্রীদের নিরাপদে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া নিশ্চিত করেই ট্রেন ছাড়া হচ্ছে। কয়েকটি ট্রেন ছাড়তে কিছুটা দেরি হয়েছে। তবে কয়েক মিনিটের ব্যবধানকে বিলম্ব বলা যাবে না। এছাড়া অন্যান্য ট্রেন তার নির্ধারিত সময়েই ছাড়ছে। আর ঈদের সময় রেলে শিডিউলজনিত চাপ বেশি থাকে। সব ব্যবস্থা করে যাত্রীদের সেবা দিতে হয়।

চট্টগ্রাম রুটের ট্রেনের বিষয়ে তিনি বলেন, দুর্ঘটনার কারণে গতকাল এই রুটে বিলম্ব ছিল। আজ সেটা কমে এসেছে। ধীরে ধীরে এটা স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

দিনবদলবিডি/এমআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়