মানবদেহে ব্রেইন-চিপ পরীক্ষার অনুমোদন পেল ইলন মাস্কের কোম্পানি

দিন বদল বাংলাদেশ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ সকাল ১১:২৫, রবিবার, ২৮ মে, ২০২৩, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

নিউরালিংক ইমপ্লান্ট কোম্পানি কম্পিউটারের সঙ্গে মস্তিষ্ককে সংযুক্ত করে মানুষের দৃষ্টি ও গতিশীলতা পুনরুদ্ধার করতে সহায়তা করতে চায়। এতদিন সেটি প্রত্যাখ্যান হয়ে এসেছে। কিন্তু, এবার ইলন মাস্কের ব্রেইন-চিপ ফার্ম জানিয়েছে, তারা মানুষের ওপর প্রথম পরীক্ষা চালানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) কাছ থেকে অনুমোদন পেয়েছে। 

বিবিসির প্রতিবেদন বলছে, ইলনের ফার্মের বক্তব্য অনুযায়ী অংশগ্রহণকারীদের নিয়োগ শুরুর তাৎক্ষণিক কোনো পরিকল্পনা তাদের নেই। আর এফডিএ জানিয়েছে, তারা নিউরালিংকের ঘোষণাকে স্বীকৃতি দিয়েছে।

গত মার্চে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এফডিএর অনুমোদন পাওয়ার জন্য নিউরালিংকের একটি প্রস্তাব নিরাপত্তাজনিত কারণে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছিল। আর গতকাল প্রকাশিত প্রতিবেদনে বিবিসি জানিয়েছে, নিউরালিংক পক্ষাঘাত ও অন্ধত্বের মতো অবস্থার চিকিৎসার জন্য এবং কিছু প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের কম্পিউটার ও মোবাইল প্রযুক্তি ব্যবহার করতে সহায়তা করার জন্য মাইক্রো চিপগুলো ব্যবহারের আশা করে। বিবিসি তাদের এই প্রতিবেদনে রয়টার্সের তথ্যও তুলে ধরে।  

বানরের ওপর পরীক্ষা করা চিপগুলো মস্তিষ্কে উৎপাদিত সংকেত ব্যাখ্যা করতে এবং ব্লুটুথের মাধ্যমে ডিভাইসে তথ্য পাঠাতে ডিজাইন করা হয়েছে। যদিও বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করেছেন যে নিউরালিংকের মস্তিষ্কের ইমপ্লান্ট ব্যাপকভাবে উপলব্ধ হতে হলে প্রযুক্তিগত ও নৈতিক চ্যালেঞ্জগুলো কাটিয়ে উঠতে ব্যাপক পরীক্ষার প্রয়োজন হবে। সূত্র: বিবিসি।

দিনবদলবিডি/এমআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়