মানবসেবা স্বপ্ন যার: নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন

নিউজ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ সকাল ১১:৩১, শুক্রবার, ১২ জানুয়ারি, ২০২৪, ২৮ পৌষ ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

২০০৩ সালে ঢামেকে বার্ন ইউনিট গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন ডা. সামন্ত লাল সেন। সেখানে ক্রমেই পরিচিতমুখ হয়ে ওঠেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর নতুন মন্ত্রিসভায় অন্তর্ভুক্তির খবরে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন শেখ হাসিনা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অভ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারির সমন্বয়ক অধ্যাপক ডা. সামন্ত লাল সেন।

'আমি এই খবরে খুব অবাক হয়েছি। আমি জানি না আমি কতটা করতে পারব। আমি আমার [বার্ন ইনস্টিটিউট] কাজ নিয়ে থাকি। এখন আমার একটি নতুন ভূমিকা তৈরি হলো। দেখা যাক; এখন কিছু বলতে পারছি না,' বুধবার তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেছিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (১১ জানুুয়ারি) তিনি শপথ নিয়েছেন। কিন্তু শপথ গ্রহণের অনেক আগেই সামন্ত লাল সেন ঠিক করে ফেলেছিলেন তিনি কী করতে চান।

সিলেটের হবিগঞ্জে জন্মগ্রহণকারী সামন্ত লাল ১৯৭৩ সালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন।

ঢাকায় শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যোগদানের আগে তিনি হবিগঞ্জে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। এরপর ১৯৮০ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চাকরি শুরু করেন।

২০১৩ সালে প্রথম আলোতে লেখা নিজের এক নিবন্ধে তিনি বর্ণনা করেছিলেন কীভাবে তিনি ঢামেকে আগুনেপোড়া রোগীদের অবহেলিত অবস্থা দেখে একটি বার্ন ইউনিট গঠনের প্রস্তাব করেছিলেন। তখন এ ধরনের রোগীদের জন্য আলাদা কোনো ইউনিট ছিল না।

২০০৩ সালে ঢামেকে বার্ন ইউনিট গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন ডা. সামন্ত লাল সেন। সেখানে ক্রমেই পরিচিতমুখ হয়ে ওঠেন তিনি।

২০১৬ সালে বাংলা ট্রিবিউনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সেন জানান, তিনি প্লাস্টিক সার্জন হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেছিলেন।

'আমার স্বপ্ন ছিল মানুষকে সুন্দর দেখানো। আমি অনেক টাকা রোজগার করতে আর অনেক গাড়ির মালিক হতে চেয়েছিলাম,' বলেন তিনি।

তবে তার এ স্বপ্ন বদলে যায় ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে এসে। এ ইউনিট তার কাছে শিশুর মতো হয়ে ওঠে বলে জানান তিনি।

নবগঠিত মন্ত্রিসভার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন স্বনামধন্য এ চিকিৎসক।

দিনবদলবিডি/Nasim

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়