নেতানিয়াহুর গণহত্যা দেখছে বিশ্ব: এরদোগান

দিন বদল বাংলাদেশ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ বিকাল ০৪:১৭, রবিবার, ২১ জানুয়ারি, ২০২৪, ৭ মাঘ ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে বর্তমান সময়ের ফুয়েরার হিসেবে বর্ণনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েব এরদোগান। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের গাজায় ‘আধুনিক সময়ের ফুয়েরার’ নেতানিয়াহুর গণহত্যা দেখছে বিশ্ব।

শুক্রবার ইস্তানবুলের কাছে মারমারা সাগরে ইয়ালোভা শিপইয়ার্ডে অনুষ্ঠিত তুর্কি নৌবাহিনীর নতুন যুদ্ধজাহাজ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। খবর ডেইলি সাবাহর।

জার্মান শব্দ ফুয়েরার নেতা অর্থে ব্যবহৃত হয়। নাৎসীবাদী জার্মানির সাবেক একনায়ক অ্যাডলফ হিটলারকে ফুয়েরার বলা হতো। বিতর্কিত সেই হিটলারের সঙ্গে ইসরাইলের নেতা নেতানিয়াহুর তুলনা করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট।

এরদোগান বলেন, গাজার সংকট রোধে কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় পশ্চিমাদের প্রতি আর আস্থা নেই। বিশ্বব্যাপী নিরাপত্তা নিশ্চিত করা যেসব সংস্থার কাজের অন্তর্ভুক্ত তা ব্যর্থ হয়েছে, যার মধ্যে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে সংঘর্ষ একটি উদাহরণ।

তিনি বলেন, ‘গাজা ইস্যুতে পশ্চিমা দেশগুলোর ফ্যাসিবাদী মুখ উন্মোচিত হয়েছে। তারা সহিংসতা প্রতিরোধে একটি পদক্ষেপও নেয়নি। বিশ্বব্যাপী নিরাপত্তার দায়িত্ব দেওয়া সংস্থাগুলো ঠিক বসনিয়া, সিরিয়া এবং সোমালিয়া ও ইরাকের মতো একটি বিপর্যয়ের শিকার হয়েছে।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, তুরস্ক বিভিন্ন সংঘাত অবসানে ব্যাপক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে, তিনি ২০২২ সালের মার্চ মাসে ইউক্রেনে একটি মীমাংসার বিষয়ে ইস্তানবুল আলোচনার কথা স্মরণ করেন।

এরদোগান বলেন, রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে সংঘর্ষ যখন বেশ কয়েক মাস ধরে চলেছিল, তখন আমরা যে প্রক্রিয়াটি শুরু করেছি তার গুরুত্ব আজকে আরও ভালোভাবে বোঝা যায়। সেই প্রক্রিয়াটি, যা সামরিক লবিগুলো নাশকতা করতে চেয়েছিল, তার লক্ষ্য অর্জন করলে হাজার হাজার মানুষকে তাদের জীবন হারাতে হতো না। আমরা দেখতে পাচ্ছি যে, যারা তখন আমাদের সমালোচনা করেছিল, তারা আজ আমাদের সঙ্গে একমত পোষণ করছে। নিশ্চিন্ত থাকুন, গাজায় ট্র্যাজেডির কারণে শেষ পর্যন্ত একই অনুশোচনা জাগবে। যারা গাজায় ইসরাইলের গণহত্যার প্রতি অন্ধ দৃষ্টিপাত করবে তারা বিপর্যয়কর পরিণতির মুখোমুখি হবে।

এর আগে এক অনুষ্ঠানে এরদোগান বলেন, তারা হিটলারকে নিন্দা করত। আপনি হিটলারের চেয়ে আলাদা নন। হিটলার তাদের মতো ধনী ছিলেন না। পশ্চিমাদের থেকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে তাদের সব ধরনের সমর্থন রয়েছে। তারা ২৫ হাজার গাজাবাসীকে হত্যা করেছে।
 

দিনবদলবিডি/Hossain

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়