বাংলাদেশকে ঘিরে ওয়েলক্স পের প্রতারণার ফাঁদ

দিন বদল বাংলাদেশ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ রাত ০৯:০০, শুক্রবার, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৯ মাঘ ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ওয়েলক্স পে নামের কোনো প্রতিষ্ঠানকে পিএসও লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। যাদের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে, তাদের তালিকা বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে আছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের লাইসেন্স, মোবাইলে আর্থিক সেবা দেওয়া (এমএফএস) শীর্ষ প্রতিষ্ঠান বিকাশের সঙ্গে চুক্তি ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অন্যতম উদ্যোক্তা সোনিয়া বশির কবিরের নাম ব্যবহার করে ওয়েলক্স পে নামের একটি প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান অপপ্রচার শুরু করেছে।

প্রতিষ্ঠানটি বিদেশি বিভিন্ন গণমাধ্যমে জানিয়েছে, ওয়েলক্স পে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে পেমেন্ট সার্ভিস ওপারেটর (পিএসও) লাইসেন্স পেয়েছে, বিকাশের সঙ্গে চুক্তি করেছে। পাশাপাশি ওয়েলক্স পের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উদ্যোক্তা সোনিয়া বশির কবির। অবশ্য এর কোনোটিই সঠিক নয় বলে জানা গেছে। এর ফলে বাংলাদেশের ব্যাংক, এমএফএস সেবার গ্রাহকদের অর্থ খোয়া যেতে পারে এই সেবায় লেনদেন করলে।

গত বছরের ১৬ নভেম্বর ভারতের হিন্দুস্তান টাইমসে একটা বিজ্ঞাপনবার্তায় বলা হয়, ওয়েলক্স পে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে পেমেন্ট সার্ভিস ওপারেটর (পিএসও) লাইসেন্স পেয়েছে। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে কোনো লাইসেন্স নেয়নি প্রতিষ্ঠানটি। এমনকি কোনো আবেদনও জমা দেয়নি। কেন্দ্রীয় ব্যাংক এখন পর্যন্ত ১০টি প্রতিষ্ঠানকে পিএসও লাইসেন্স দিয়েছে। পিএসও প্রতিষ্ঠানগুলোতে যেকোনো ব্যাংক, এমএফএস থেকে টাকা নিয়ে লেনদেন করা যায়।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মেজবাউল হক বলেন, ওয়েলক্স পে নামের কোনো প্রতিষ্ঠানকে পিএসও লাইসেন্স দেওয়া হয়নি। যাদের লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে, তাদের তালিকা বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে আছে।

দিনবদলবিডি/Rony

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়