স্পাইওয়্যার অপব্যবহারকারীদের উপরে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নিষেধাজ্ঞার উদ্দেশ্য কি?

দিন বদল বাংলাদেশ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ দুপুর ১২:৪১, বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ২৪ মাঘ ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর নতুন একটি নীতি বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, নতুন নীতির আওতায় বাণিজ্যিক স্পাইওয়্যারের অপব্যবহারের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের ওপর ভিসা বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে।

এই ভিসা নীতির আওতায় তাঁদের পরিবারের সদস্যরা, বিশেষ করে স্ত্রী-সন্তানেরাও থাকবেন। ৫ ফেব্রুয়ারি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এক বিবৃতিতে এ নীতি ঘোষণা করেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্বজুড়ে দমন-পীড়ন, তথ্যের অবাধ প্রবাহকে বাধাগ্রস্ত করা এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের মতো ক্ষেত্রে বাণিজ্যিক স্পাইওয়্যারের ক্রমবর্ধমান অপব্যবহার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন।

স্পাইওয়্যারের অপব্যবহার ব্যক্তির গোপনীয়তা, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা, শান্তিপূর্ণ সমাবেশ ও সংগঠনের অধিকারকে হুমকির মুখে ফেলছে। এছাড়া নির্বিচারে আটক, গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনাও ঘটছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি স্পাইওয়্যার বাণিজ্যিকভাবে বিক্রি করে ইসরাইল। ফিলিস্তিনের জনগণের গতিবিধি পর্যবেক্ষণেও স্পাইওয়্যারের অপব্যবহার করে দেশটি।

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন এই নীতি কি ইসরাইলে কার্যকর করা হবে? কেননা বরাবরই দেশটি মানবাধিকার লঙ্ঘন, গাজায় গণহত্যা চালালেও নীরব থেকে একচোখা নীতি অবলম্বন করে যুক্তরাষ্ট্র।

দিনবদলবিডি/Anamul

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়