বেইলি রোডে আগুনে স্ত্রী-সন্তানসহ কাস্টমস কর্মকর্তার মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ সন্ধ্যা ০৬:১৪, শনিবার, ২ মার্চ, ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

শাহ জালালের বড় ভাই শাহজাহান জানান, তার ছোট ভাই নারায়ণগঞ্জ কাস্টমস অফিসের রেভিনিউ কালেকট্টর হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার ভাইয়ের শ্বশুর ও কাস্টমস অফিসের কর্মকর্তারা লাশ শনাক্ত করতে পেরেছেন। ধারণা করা হচ্ছে অতিরিক্ত ধোঁয়ায় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

রাজধানীর বেইলি রোডে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে নিহত হয়েছেন একই পরিবারের তিনজন। নিহতরা হলেন কাস্টমস কর্মকর্তা শাহ জালাল উদ্দিন, তার স্ত্রী মেহেরুন নেছা হেলালি মিনা ও তিন বছরের কন্যা ফাহিরুজ জামিরা।


বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে তারা বেইলি রোডের ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্টুরেন্টে ডিনার করতে যান। এ সময় অগ্নিকাণ্ডে স্ত্রী ও সন্তানসহ তার মৃত্যু হয়।

তাদের বাড়ি কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নে। নিহত শাহ জালাল বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেমের মেঝ ছেলে। তার বড় ভাই শাহজাহান সাজু হলদিয়া পালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহত শাহ জালালের বড় ভাই শাহজাহান। তিনি জানান, তার ছোট ভাই নারায়ণগঞ্জ কাস্টমস অফিসের রেভিনিউ কালেকট্টর হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তার ভাইয়ের শ্বশুর ও কাস্টমস অফিসের কর্মকর্তারা লাশ শনাক্ত করতে পেরেছেন। ধারণা করা হচ্ছে অতিরিক্ত ধোঁয়ায় শ্বাসরুদ্ধ হয়ে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতদের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যে লাশ কক্সবাজারে আনার জন্য তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন।

হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী জানিয়েছেন, একই পরিবারের সবাইকে একসঙ্গে হারিয়ে ফেলা এর চেয়ে বড় কষ্ট আর নেই। লাশ নিয়ে আসার ব্যাপারে পরিবারের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলেও জানান তিনি।

দিনবদলবিডি/Nasim

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়