মসজিদে মাইকিং করে গণপিটুনি, নিহত বেড়ে ৪

নিউজ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ সকাল ১১:৪২, সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০২৪, ৪ চৈত্র ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রামবাসীর গণপিটুনিতে এখন পর্যন্ত ডাকাত দলের চার সদস্য নিহত হয়েছেন। এখনো আশঙ্কাজনক অবস্থায় আরও একজন ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ-সার্কেল) শেখ বিল্লাল হোসেন। রোববার (১৭ মার্চ) দিনগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী গ্রামের চকে এ ঘটনা ঘটে।

তবে নিহত ও আহতদের বিস্তারিত নাম পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি। তারা সবাই ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য বলে জানা গেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের বাঘরী গ্রামের বিলে ১০-১২ জনের একটি ডাকাত দল ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় স্থানীয় কয়েকজন তাদের দেখতে পেয়ে মসজিদের মাইকে ডাকাত বলে ঘোষণা দেয়। এরপর গ্রামবাসী একত্র হয়ে লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ডাকাতদের চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যরা পালানোর চেষ্টা করলে তাদের ধাওয়া দিয়ে ধরে গণপিটুনি দেয়।

এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন মারা যান। অন্যরা পালিয়ে বিলের বিভিন্ন পুকুরের পানিতে ঝাঁপ দেয়। পরে তাদের পুকুর থেকে তুলে আরও দুজনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে। আহত দুজনকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল ও পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সোমবার সকালে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও একজনের মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ-সার্কেল) শেখ বিল্লাল হোসেন বলেন, এ পর্যন্ত ডাকাত দলের চার সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার পর ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। নিহত ও আহতদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

দিনবদলবিডি/Jannat

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়