শাড়ি পরা নিয়ে মন্তব্য করে বিতর্কে মমতা, যা বললেন শ্রীলেখা

নিউজ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ বিকাল ০৫:৩৫, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০২৪, ৭ চৈত্র ১৪৩০
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

সোশ্যাল মিডিয়ায় বিষয়টি নিয়ে বেশ চর্চা চলছে। অনেকে মমতা শঙ্করকে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় বিশ্বাসী বলে মন্তব্য করছেন। কেউ কেউ বলছেন, যৌনকর্মীদের অপমান করা হয়েছে। আবার অনেকে মমতা শঙ্করের মন্তব্যকে সঠিক বলে মনে করছেন।

বরেণ্য অভিনেত্রী, নৃত্যশিল্পী মমতা শঙ্কর। তার অভিনয় ও নাচের জাদুতে মুগ্ধ অসংখ্য অনুরাগী। ৬৯ বছর বয়সী মমতা এখনো ঐতিহ্যগত ভাবনা সযত্নে লালন করেন। পুত্র-পুত্রবধূ, নাতি-নাতনিদের নিয়ে হইচই করে তার সময় কাটে।


কয়েক দিন আগে ভারতীয় একটি গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মমতা শঙ্কর। এ আলাপচারিতায় বর্তমান প্রজন্মের মেয়েদের শাড়ি পরা নিয়ে মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন এই শিল্পী। বলা যায়, রীতিমতো বিতর্কের মুখে পড়েছেন তিনি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বিষয়টি নিয়ে বেশ চর্চা চলছে। অনেকে মমতা শঙ্করকে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ ব্যবস্থায় বিশ্বাসী বলে মন্তব্য করছেন। কেউ কেউ বলছেন, যৌনকর্মীদের অপমান করা হয়েছে। আবার অনেকে মমতা শঙ্করের মন্তব্যকে সঠিক বলে মনে করছেন।

আরো পড়ুন: মেয়েরা এমনভাবে শাড়ি পরে আঁচলটা ঠিক থাকে না: মমতা শঙ্কর

টলিউড অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে এ অভিনেত্রী লেখেন, ‘মমতা শঙ্করকে অভিযুক্ত বা ট্রল করার আগে তার বক্তব্যে কি বুঝাতে চেয়েছেন তা বোঝা দরকার। হ্যাঁ, এটা নিশ্চিত যে তাতে অন্তদর্শন রয়েছে। আমি নিশ্চিত তিনি লাইসেন্সড যৌনকর্মীদের আঘাত করে কথা বলেননি।’

শ্রীলেখার এমন ভাবনাকে অনেকেই সমর্থন করেননি। বরং কেউ কেউ বলছেন, মমতা শঙ্কর অত্যন্ত নীচু মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন। আবার নেটিজেনদের কারো কারো দাবি, মমতার পক্ষে সাফাই গাইছেন শ্রীলেখা। বিষয়টি নিয়ে জোর চর্চা চললেও এখনো মুখ খুলেননি মমতা শঙ্কর। 

দিনবদলবিডি/Nasim

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়