মেহেদির রঙ মুছার আগেই লাশ হলেন বৃষ্টি

কুমিল্লা সংবাদদাতা || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ বিকাল ০৩:৪২, রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০২২, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৯
ফাতেমা আক্তার বৃষ্টি

ফাতেমা আক্তার বৃষ্টি

কুমিল্লার মুরাদনগরে মেহেদীর রঙ মুছার আগেই ফাতেমা আক্তার বৃষ্টির (২০) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তবে নিহতের পরিবারের দাবি, যৌতুক না পেয়ে শ্বশুর বাড়ির লোকজন বৃষ্টিকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দিচ্ছে।

শনিবার (৬ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার চাপিতলা ইউনিয়নের রাজা চাপিতলা গ্রাম থেকে বৃষ্টির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রাজা চাপিতলা গ্রামের খাইরুল ইসলাম বাবুর সঙ্গে দেড় মাস আগে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাউল্লাহ গ্রামের ফরিদ মিয়ার মেয়ে ফাতেমা আক্তার বৃষ্টির সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে বিভিন্ন সময় বৃষ্টির শশুর বাড়ির লোকজন যৌতুকের টাকার জন্য ও ছোটখাট বিষয় নিয়ে বৃষ্টিকে নির্যাতন করতো।

বৃষ্টির বাবা ফরিদ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়েকে হত্যা করে আত্মহত্যা করছে বলে শশুর বাড়ির লোকজন চালিয়ে দিচ্ছে। কিন্তু আমরা ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ দেখিনি। বৃষ্টির শরীরে ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

বাঙ্গরা বাজার থানার ওসি কামরুজ্জামান বলেন, বৃষ্টির লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় বাঙ্গরা থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দিনবদলবিডি/এমআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়