গাজীপুর মহাসড়কে তীব্র যানজট, চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা

দিনবদলবিডি ডেস্ক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: বিকাল ০৫:০২, শুক্রবার, ৮ জুলাই, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ
গাজীপুর মহাসড়কে তীব্র যানজট, চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা

ছবি: সংগৃহীত

গাজীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ ও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। যানবাহনের চাপ, ট্রাফিক আইন না মানা, সড়কে নিার্মাণ সামগ্রী এবং খানাখন্দকের কারণে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে যানজট দীর্ঘ হতে থাকে।

আজ শুক্রবার (৮ জুলাই) দুপুরে প্রতিবেদন লেখার সময় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার সড়কে যানবাহনের দীর্ঘ সারির রয়েছে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাড়কের অবস্থা আরো শোচনীয়।

কালিয়াকৈরের সফিপুর থেকে চন্দ্রা হয়ে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পর্যন্ত যানজট লেগে আছে। অন্যদিকে যানজটে নবীনগর-চন্দ্রা সড়কের নন্দন পার্ক থেকে চন্দ্রা পর্যন্ত গাড়ি আটকে রয়েছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ের টঙ্গী ব্রিজ থেকে চেরাগআলী মার্কেট পর্যন্ত ময়মনসিংহমুখী লেনে যানবাহন থেমে আছে। চেরাগআলী থেকে বোর্ডবাজারের সাইনবোর্ড পর্যন্ত গাড়ি চলছে থেমে থেমে। সাইনবোর্ড থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত পুরো সড়ক কার্যত বন্ধ হয়ে আছে।

অন্যদিকে ঢাকামুখী লেনের যানজট সাইনবোর্ড থেকে পোড়াবাড়ী পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার ছাড়িয়েছে। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কালিয়াকৈরের সফিপুর থেকে চন্দ্রা এবং বঙ্গবন্ধু হাইটেক পার্ক থেকে হিজলতলী ব্রীজ পর্যন্ত দীর্ঘ যানজট। অনেক গাড়ি দুই ঘণ্টায় এক কিলোমিটার পথও পাড়ি দিতে পারছে না। আবার তীব্র গরমে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন যাত্রীরা। সড়কের সর্বত্র অব্যবস্থাপনার মধ্যেও নেই পর্যাপ্ত পুলিশ।

এদিকে যানবাহনের অভাবে বহু যাত্রীকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পিকআপে করে বাড়ি ফিরতে দেখা গেছে। অভিযোগ উঠেছে যাত্রীর চাপ থাকার সুযোগে পরিবহন সংশ্লিষ্টরা অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছেন।  

রংপুরগামী যাত্রী সুরাইয়া আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় নারায়নগঞ্জ থেকে ট্রাকে রওনা হয়ে শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে গাজীপুর পৌছেছেন। রংপুর কখন পৌঁছাবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন তিনি। যানজটের কারণে প্রকৃতির ডাকে সাড়া এবং খাবার-দাবারের সমস্যায় ভোগছেন।

সফিপুর এলাকায় কথা হলে আবদুল নামের এক যাত্রী বলেন, রাত ১১টায় ঢাকা থেকে পঞ্চগড় যাওয়ার জন্য পিকআপে উঠেছেন। সারারাত পিকআপেই কেটে গেছে। চারিদিকে শুধু মানুষ আর গাড়ি।

এদিকে দুই মহাসড়কে যানজটের প্রভাবে টঙ্গী-ঘোড়াশাল-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে টঙ্গী থেকে পূবাই পর্যন্ত থেমে থেমে এবং ঢাকা বাইপাস সড়ক গাজীপুরের ভোগড়া থেকে কালীগঞ্জের উলুখলা পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার যানজট লেগে আছে।

সালনা হাইওয়ে থানার ওসি ফিরোজ হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে গার্মেন্ট ছুটির পর গাজীপুর শিল্পাঞ্চলে যাত্রীর চাপ বেড়েছে। যার কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। যানজট নিরসনে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে।

দিনবদলবিডি/এইচএআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়