হোয়াইওয়াশসহ উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের সামনে দুই সুযোগ আজ

দিনবদলবিডি ডেস্ক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: সকাল ১১:২৪, শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০২২, ২৮ শ্রাবণ
হোয়াইওয়াশসহ উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের সামনে দুই সুযোগ আজ

সংগৃহীত ছবি

মাত্র কয় মাস আগেই দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ জয়ের পর এবার বাংলাদেশের সামনে উইন্ডিজকে হোয়াইওয়াশ ওয়াশের সূবর্ণ সুযোগ। তাও ক্যারিবিয়ান দ্বীপেই।

আজ (শনিবার, ১৬ জুলাই) বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গায়ানাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। প্রথম ২ ম্যাচ জিতেই সিরিজ আগেই পকেটে নিয়েছিল সফরকারী বাংলাদেশ দল। প্রথম ম্যাচে ৬ ও দ্বিতীয় ম্যাচে ৯ উইকেটে জয়ে সিরিজ নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ।  সিরিজের শেষ ম্যাচটি নিয়মরক্ষার হলেও বাংলাদেশের সামনে আছে হোয়াইটওয়াশসহ দুই সুযোগ।

প্রথমত উইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করলে এটি হবে বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসে ১৫তম। আর দ্বিতীয়ত জিততে পারলে মুখোমুখি দেখায় জয়ের সংখায় উইন্ডিজের সঙ্গে সমতা আনবে বাংলাদেশ।

এখন পর্যন্ত দুই দল মুখোমুখি হয়েছে ৪৩বার। ২১ বার জিতেছে উইন্ডিজ আর বাংলাদেশ ২০ বার। ২টি ম্যাচের ফল হয়নি। আজ জিতলেই দুই দলেরই হবে ২১। আর হারলে উইন্ডিজ আরও এক ম্যাচ এগিয়ে যাবে (২২)।

এই সিরিজটি আইসিসি ওয়ানডে সুপারলিগের অংশ নয়। এটি থেকে রেটিং পয়েন্ট যুক্ত হবে মাত্র ১টি। কাগজে কলমে এর গুরুত্ব এতটা নেই। তাইতো সিরিজ জয়ের পর তামিম ইঙ্গিত দিয়েছিলেন শেষ ম্যাচে বেঞ্চ বাজিয়ে দেখার। তবে প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো তেমনটা ভাবছেন না। ম্যাচের আগেরদিন সাংবাদিকদের ইঙ্গিত দিয়েছেন তেমনি।

ডমিঙ্গো বলেন, ‘বিজয় (এনামুল) অসাধারণ কাজ করেছে বলার অপেক্ষা রাখে না। ভালো করেই সে স্কোয়াডে ফিরেছে। তবে কোচ হিসেবে আমি স্বচ্ছ থাকতে চাই, আমার স্কোয়াডে যারা এতোদিন ছিল তারা আগে সুযোগ পাবে। যারা স্কোয়াডে আসবে তাদেরকে অপেক্ষা করতে হবে। যেমনটা রাব্বির সঙ্গে হয়েছে। অনেকটা সময় দলের সঙ্গে ঘোরাফেরা করেছে। যখনই সুযোগ হয়েছে তাকে আমরা খেলিয়েছি। যেহেতু সে (এনামুল) এখন স্কোয়াডে আছে। তাকে তার সুযোগের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। যারা আগে স্কোয়াডে ছিল তারা সুযোগ পাবে এরপর তার সুযোগও আসবে।’

শুধু তাই নয় ডোমিঙ্গো চাচ্ছেন আদর্শ কম্বিনেশন গড়ে মাঠে নামার জন্য। ‘উইকেট এবং কন্ডিশনের বিবেচনায় আমরা বাড়তি একজন স্পিনার নিয়ে খেলছি। এ অবস্থায় একজন বাড়তি পেসার নিয়ে খেলা কঠিন। তাদের জন্য এখানের উইকেটে কিছুই নেই। আপনি সব সময়ই চাইবেন, দলের সবাই যেন ম্যাচ খেলার সুযোগ পায়। কিন্তু আপনাকে কন্ডিশন বিবেচনা করে আদর্শ কম্বিনেশন দাঁড় করাতে হবে। তাই কাল (আজ) খুব বেশি পরিবর্তনের সুযোগ নেই।’  

গায়ানার উইকেট যেহেতু স্পিনারদের স্বর্গ রাজ্য সেহেতু আগের ম্যাচের বোলিং কম্বিনেশন নিয়েই মাঠে নামতে চাইবে বাংলাদেশ। অর্থাৎ বোলিংয়ে সম্ভাব্য কোনো পরিবর্তনের আভাস নেই। নাম কাটা পড়তে পারে কোনো ব্যাটসম্যানের। সেক্ষেত্রে একাদশে আসতে পারেন এনামুল হক বিজয়। তাও। ডোমিঙ্গো যেভাবে বাঁহাতিদের খেলানোর কথা বলেছেন সেক্ষেত্রে এনামুলের খেলার সম্ভাবনাও খুব একটা বেশি না।

তবে এই ম্যাচে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে বৃষ্টি। আজ ম্যাচের দিন স্থানীয় সময় ভোর রাত থেকে সারাদিন জুড়েই বৃষ্টির শঙ্কা আছে। তবে বিকেল ৪টা থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। সেক্ষেত্রে প্রথম ম্যাচের মতো ম্যাচ হতে অয়ারে কার্টেল ওভারে। উল্লেখ্য প্রথম ম্যাচ হয়েছে ৪১ ওভারে।

কাগজে কলমে বাংলাদেশের সামনে ম্যাচটি গুরুত্বহীন। টিম ম্যানেজম্যান্টের সামনে সুযোগ বেঞ্চ বাজিয়ে দেখার। তবে অধিনায়ক-কোচের দুইরকম চাওয়াতে মনে হচ্ছে তেমনটা হবে না। তবে শেষ পর্যন্ত টিম ম্যানেজম্যান্ট কি লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামে তা বোঝা যাবে সন্ধ্যাতেই।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত/এনামুল হক বিজয়, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ও নাসুম আহমেদ।

দিনবদলবিডি/আরএজে

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়