শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল পাকিস্তান

দিনবদলবিডি ডেস্ক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: বিকাল ০৩:৩৬, বুধবার, ২০ জুলাই, ২০২২, ২৯ শ্রাবণ

জয় থেকে পাকিস্তান তখন ছিল ১১ রানের দূরত্বে। তখনই গল ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামের আকাশ কাঁদল অঝোরে। তাতে অবশ্য পাকিস্তানের জয়টাই বিলম্বিত হয়েছে। বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। শেষমেশ ইতিহাসটা গড়েই ফেলেছে বাবর আজমের দল, শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে ৪ উইকেটের ব্যবধানে।

পাকিস্তানের এই জয়ের কৃতিত্বের একটা বড় অংশ যাবে ওপেনার আব্দুল্লাহ শফিকের কাছে। শেষ ইনিংসে তিনি পাকিস্তানকে এনে দিয়েছেন দারুণ একটা শুরু। চতুর্থ-পঞ্চম দিনের টার্নিং উইকেটে দাঁতে দাঁত চেপে লড়েছেন শেষ পর্যন্ত। খেলেছেন ১৬০ রানের ক্যারিয়ারসেরা ইনিংস। তাতেই তো পাকিস্তান গড়েছে এই কীর্তি।

শেষ দিনে পাকিস্তানের প্রয়োজন ছিল ১২০ রান, হাতে ছিল ৭ উইকেট। তবু শঙ্কা একটা ছিল। প্রবাথ জয়াসুরিয়া যে ছিলেন লঙ্কান দলে, আগের দিন বিকেলেই তো দেখিয়ে দিয়েছেন তার ক্ষমতা কী! শেষ বিকেলে বাবর আজমকে বোকা বানিয়ে বোল্ড করেছিলেন। লেগ স্টাম্পের বাইরের পড়ে বলটা বাবরের পেছন দিয়ে গিয়ে আঘাত হেনেছিল স্টাম্পে, অবিশ্বাস নিয়ে কিছুক্ষণ তাকিয়ে ছিলেন পাক অধিনায়ক।

পাকিস্তান পঞ্চম উইকেট যখন হারাল, জয় থেকে তখনো ৪৪ রান দূরে তারা। তখনই ডাক পড়ে মধ্যাহ্ন বিরতির।

বিরতির পর এবার আঘাত হানলেন দনাঞ্জয়া ডি সিলভা। তার শিকার যখন বনলেন হাসান আলি, জয় থেকে ৩৯ রান দূরে ষষ্ঠ উইকেট খুইয়ে বসে পাকিস্তান রীতিমতো প্রমাদ গুণছে হারেরই। শেষ দিনের টার্নিং উইকেটে, লেজের ব্যাটসম্যানদের নিয়ে যে ৩৯ রান অনেক বেশি কিছুই!

তবে আব্দুল্লাহ শফিক পাকিস্তানকে আর কোনো বিপদে পড়তে দেননি। শেষ দিকে বৃষ্টি নেমেছে, তাতে পাকিস্তানের ড্রয়ের একটা শঙ্কা তৈরি হয়েছিল বৈকি! সে বৃষ্টি অবশ্য বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। গলের আকাশে রোদ হেসেছে শিগগিরই। সঙ্গে পাক অধিনায়ক বাবর আজমের মুখেও ফুটেছে হাসি। শেষমেশ সফরকারীরা জিতেছে সেই ৪ উইকেটের ব্যবধানেই।

এরই ফলে রেকর্ড একটা গড়ে ফেলেছে পাকিস্তান। গল ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করার রেকর্ড হয়ে থাকল এই টেস্টে। পাকিস্তান নিজেদের ইতিহাসেরও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান তাড়া করার রেকর্ড গড়ে ফেলল আজ।

দিনবদলবিডি/এমআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়