সুনামগঞ্জে আদালতের ব্যতিক্রমী রায়, জোড়া লাগল ২৫ দম্পতির সংসার

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: সন্ধ্যা ০৭:৩৩, বুধবার, ২০ জুলাই, ২০২২, ২ ভাদ্র

সুনামগঞ্জে আবারও ব্যতিক্রমী রায়ে ৬৫ শিশু ও ২৫ দম্পতিকে পরিবারের মাঝে ফিরিয়ে দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২০ জুলাই) দুপুর ১২টায় শিশু আইনে ও ১টার দিকে নারী নির্যাতন দমন আইনে এ রায় দেন সুনামগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক জাকির হোসেন।

এ সময় শিশুদের আদালতের পক্ষ থেকে জাতীয় পতাকা, ফুল, মুক্তিযুদ্ধের বই, ডায়েরি ও কলম উপহার দেওয়া হয়।

প্রবেশনের মাধ্যমে ৫২টি মামলার ৬৫ শিশু আসামিকে শিশু কারাগারে না পাঠিয়ে ৬টি শর্তে মুক্ত করা হয়। শর্তগুলো হচ্ছে মুক্তিযুদ্ধকে জানা, বিভিন্ন প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেকে স্বাবলম্বী করা, প্রতিদিন দুটি ভালো কাজ করা, কমপক্ষে ২০টি গাছ রোপণ, নিয়মিত ধর্ম পালন ও বাবা-মায়ের কথা শোনা, মাদক ও অন্যান্য অপরাধ থেকে বিরত থাকা।

শর্তগুলো প্রতিপালন তদারকি করবেন জেলা প্রবেশন অফিসার শাহ শফিউর রহমান। প্রবেশন অফিসারের পরবর্তী প্রতিবেদন সাপেক্ষে তাদের চূড়ান্ত মুক্তি ও অথবা আবার আইনের আওতায় আনা হবে।

এদিক শিশু মামলা ছাড়াও একই বিচারক আদালত স্বামীর ওপর করা ২৫টি মামলা নিষ্পত্তি করে তাদের পরিবারকে ভাঙনের হাত থেকে রক্ষা করেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, যৌতুকসহ নানা কারণে নির্যাতনের শিকার হয়ে সংসার থেকে বিতাড়িত ২৫ নারী তাদের নিজ নিজ স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছিলেন। বিচারক বক্তব্য শুনে সন্তান ও মঙ্গলের জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্প্রীতি ও মিলনের শর্তে ২৫ যুগলকে পারিবারিকভাবে এক করে দেন।

এসব বিষয় নিশ্চিত করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) নান্টু রায় বলেন, সুনামগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক কিছু শর্ত আরোপের মাধ্যমে ৫২টি শিশু মামলা ও ২৫টি নারী ও শিশু মামলা নিষ্পত্তি করে তাদের সংসারে ফেরত পাঠিয়েছেন। এতে তারা সবাই অনিশ্চিত জীবন থেকে রক্ষা পেল।

দিনবদলবিডি/এমআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়