‘একদিন বিএনপি নামে বাংলাদেশে কোনো দল থাকবে না’

নাটোর সংবাদদাতা || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: রাত ০৯:০৩, মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০২২, ২৬ শ্রাবণ
‘একদিন বিএনপি নামে বাংলাদেশে কোনো দল থাকবে না’

ছবি: সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, আওয়ামী লীগ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি করায় বিএনপি বলেছিল পাগল ও শিশু ছাড়া কেউ তত্ত্বাবধায়ক সরকার চায় না। আজ সেই বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক সরকার চায়। বিএনপি নির্বাচনে আসুক আর না আসুক নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের পরতে পরতে ইতিহাস। আওয়ামী লীগ কোনো সেনা ছাউনি থেকে উঠে আসা দল নয়। জিয়াউর রহমান একজন ঠাণ্ডা মাথার খুনি ছিলেন। তিনি রাতের অন্ধকারে বিচারক আবু সাঈদ চৌধুরীকে অস্ত্র ঠেকিয়ে রাষ্ট্রপতির পদ থেকে অব্যাহতিপত্রে স্বাক্ষর করান।

নির্বাচন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিএনপি এত এত শর্ত দিয়ে নির্বাচনে আসতে চায়। আওয়ামী লীগ কি ভুঁইফোড় সংগঠন যে বিএনপির সব কথা শুনতে হবে? বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর ট্রেনে আগুন দিয়েছে, কোরআন পুড়িয়েছে, শিশু হত্যা, গ্রেনেড হামলা করে লাশের মিছিল বানিয়েছে। বিএনপি সেসবের জন্য জ্বলে-পুড়ে মরছে। একদিন বিএনপি নামের কোনো সংগঠন বাংলাদেশে থাকবে না।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বলেন, সম্মেলনে দলের ভেতর প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকবে, কিন্তু হিংসা নয়। কারো কাছে দল জিম্মি নয়। ২০০৯ সালের পর যারা দলে এসেছেন, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে নির্বাচন করেছেন, তারা নেতা হতে পারবেন না। প্রধানমন্ত্রী যাকে মনোনয়ন দেবেন তিনি নেতা হবেন। সবাইকে তার পক্ষে কাজ করতে হবে।

বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে এস এম কামাল হোসেন বলেন, শেখ হাসিনার সরকার না কি অবৈধ, স্বৈরাচার, ফ্যাসিস্ট সরকার। শেখ হাসিনার সরকার এগুলো হলে জিয়ার সরকার সরকার কী? জিয়াউর রহমান রাতের অন্ধকারে অস্ত্র ঠেকিয়ে ক্ষমতা ছিনিয়ে নিয়েছেন। হাওয়া ভবন থেকে বাংলা ভাইদেরকে আদেশ দেওয়া হয়েছে। সারা দেশে একযোগে গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে বিএনপি। ১৬ জন সাংবাদিককে হত্যা করা হয়েছে বিএনপি সরকারের আমলে। শেখ রাসেল ও লালপুরের জননেতা মমতাজ উদ্দিনকে হত্যা করল কারা?

বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুস। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান।

পরে বিকেলে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে নুরুল ইসলাম ঠাণ্ডু বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মজিবর রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইউনুস আলীর সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, সদস্য বেগম আক্তার জাহান, সদস্য সৈয়দ আব্দুল আউয়াল শামীম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ও নাটোর-৩ সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য জুনাইদ আহমেদ পলক, নাটোর-১ আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল এমপি, সাবেক সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ, সংরক্ষিত মহিলা আসন-৪৩-এর সংসদ সদস্য রত্না আহমেদ।

দিনবদলবিডি/এইচএআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়