হৃদরোগে ‘সিপিআর’ সচেতনতায় হেলো -আইপিডিআই এর প্রশিক্ষণ

দিনবদলবিডি ডেস্ক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: বিকাল ০৪:৫৬, শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০২২, ২৯ শ্রাবণ
হৃদরোগে ‘সিপিআর’ সচেতনতায় হেলো -আইপিডিআই এর প্রশিক্ষণ

ছবি- সংগৃহীত

‘কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে জীবন বাচায় সিপিআর, ঘরে ঘরে হোক এর ট্রেনিং সেন্টার’ - এই অঙ্গীকার নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দিলো হেলো -আইপিডিআই ফাউন্ডেশন।

গত মঙ্গলবার (২১ জুন) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে হেলো-আইপিডিআই ফাউন্ডেশন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা অনুষদের যৌথ উদ্যোগে সিপিআর (কার্ডিওপালমোনারি রিসাসিটেশিন) প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজিত হয়।

অনুষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইপিডিআই ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. আবদুল ওয়াদুদ চৌধুরী, তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা অনুষদের অধ্যাপক ড. সালমা চৌধুরী হেলদি হার্ট হ্যাপি লাইফ অর্গানাইজেশনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু রেজা মো. কাইউম খান, হেলো-আইপিডিআই ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এবং সেক্রেটারি জেনারেল হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. মহসীন আহমদ।

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক আবদুল ওয়াদুদ চৌধুরী বলেন, প্রতি বছর প্রায় ১৮ মিলিয়ন মানুষ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এর মধ্যে একটি বড় অংশই শুধু কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে আক্রান্ত ব্যক্তিকে মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচানোর অন্যতম উপায় হলো সিপিআর। কোনো ধরণের ডাক্তারিবিদ্যা ছাড়াই যেকোনো মানুষের পক্ষে সিপিআর পদ্ধতি শেখা সম্ভব। জনসাধারণের মাঝে সিপিআর-এর সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যেই হেলো-আইপিডিআই এমন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

হেলো-আইপিডিআই ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ডা. মহসীন আহমেদ ‘কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট ও সিপিআর’ বিষয়ক প্রবন্ধ উপস্থাপন শেষে বলেন, ‘কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে আক্রান্ত ব্যক্তির জীবন বাঁচানোর পেছনে সিপিআর-এর ভূমিকা অনস্বীকার্য। উন্নতবিশ্বে এই গুরুত্ব সঠিকভাবে উপলব্ধ হয়েছে বিধায় সেখানে সিপিআর প্রশিক্ষণের ব্যাপারে সচেতনতা সহজেই প্রতীয়মান হয়। অন্যদিকে আমাদের দেশে কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট এবং সিপিআর সম্পর্কে জনসাধারণের ধারণা না থাকায় এ-ধরণের কোনো উদ্যোগ পরিলক্ষিত হয় না। এই সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে ওঠার লক্ষ্যেই হেলো-আইপিডিআই ফাউন্ডেশন কাজ করে যাচ্ছে।

কার্ডিয়াক অ্যারেস্টে জীবন বাঁচায় সিপিআর, ঘরে ঘরে হোক এর ট্রেনিং সেন্টার - এই অঙ্গীকার নিয়ে আমাদের আজকের এই কর্মশালার আয়োজন।’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার সুস্বাস্থ্য কামনা করে এমন একটি মহৎ উদ্যোগ হাতে নেওয়ায় হেলো-আইপিডিআই ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে সভাপতি অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, উক্ত কর্মশালায় আইপিডিআই ফাউন্ডেশনের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. আসিফ জামান তুষার, ডা. মাহবুবা আক্তার চৌধুরী ও ডা. শিবলী শাহেদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের বিনামূল্যে হাতে কলমে সিপিআর প্রশিক্ষণ দান করেন।

দিনবদলবিডি/আরএজে

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়