রোববার

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১


১৬ ফাল্গুন ১৪২৭,

১৫ রজব ১৪৪২

দিন বদল বাংলাদেশ

১৪৪ ধারা শেষ হতেই সমাবেশে কাদের মির্জা 

নোয়াখালী সংবাদদাতা || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:৩৯, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  
১৪৪ ধারা শেষ হতেই সমাবেশে কাদের মির্জা 

ছবি: সংগৃহীত

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা পর সমাবেশ করেছেন পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। আজ (সোমবার) সন্ধ্যা ৭টার দিকে পৌরসভার রূপালী চত্বরে তার সমাবেশ শুরু হয়। বিষয়টি জানিয়েছেন মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ব্যক্তিগত সহকারী মো. সিরাজুল ইসলাম।

একই সময়ে টেকের বাজারে সমাবেশ করছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান বাদল। এ অবস্থায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। যেকোনো সময় দুই পক্ষের সংঘর্ষের আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।

সোমবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি করেছিলেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউল হক মীর।  

এরই মধ্যে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে বসুরহাটের রূপালী চত্বরে সংবাদ সম্মেলনের চেষ্টা করেন মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। তবে প্রশাসনের বাধায় শেষ পর্যন্ত সংবাদ সম্মেলন করতে পারেননি। পরে কয়েক মিনিট রূপালী চত্বরে সমাবেশ মঞ্চে বসে থাকেন তিনি।

এর আগে বিকেল ৩টায় সংবাদ সম্মেলন ডাকেন কাদের মির্জা। নির্ধারিত সময়ে কাদের মির্জা সেখানে হাজির হন। খবর পেয়ে সেখানে উপস্থিত হন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুপ্রভাত চাকমা ও জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক জ্যোতি খীসা।

১৪৪ ধারা বলবৎ থাকায় রূপালী চত্বরে সংবাদ সম্মেলন করা যাবে না বলে কাদের মির্জাকে জানিয়ে দেন তারা। এ সময় কাদের মির্জা তাদের সঙ্গে তর্কে জড়ান। পরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ জ্যেষ্ঠ নেতাদের মেয়র আবদুল কাদের মির্জার কটূক্তির প্রতিবাদে সোমবার বিকেল ৩টায় রূপালী চত্বরে বিক্ষোভ কর্মসূচি ডাকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমানের নেতৃত্বাধীন একটি অংশ। একই সময়ে একই স্থানে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিনের মৃত্যুর প্রতিবাদে শোক ও প্রতিবাদ সভা ডাকেন মেয়র কাদের মির্জা।

দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘোষণার কারণে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বসুরহাট পৌর এলাকা। এমন পরিস্থিতিতে সংঘাত-সহিংসতা এড়াতে রবিবার রাত ১১টার দিকে বসুরহাট পৌরসভা এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করে উপজেলা প্রশাসন। কিন্তু ১৪৪ ধারা শেষে আবার সভা-সমাবেশ শুরু করেছে দুই পক্ষ। 

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) রবিউল হক বলেন, রুপালী চত্বরে সমাবেশ করছেন মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। টেকের বাজারে প্রতিবাদ সভা করছেন মিজানুর রহমান বাদল। এখন পর্যন্ত অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। টেকের বাজার থেকে কোনো মিছিল যেন পৌর এলাকায় ঢুকতে না পারে, সেজন্য কঠোর অবস্থানে রয়েছি আমরা।

দিনবদলবিডি/এআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়