বৃহস্পতিবার

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১


৮ আশ্বিন ১৪২৮,

১৩ সফর ১৪৪৩

দিন বদল বাংলাদেশ

দুধ কিনতে না পেরে সন্তানদের ভাতের মাড় খাওয়াচ্ছেন মা-বাবা

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: ২৩:৪৩, ৩ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ২৩:৪৩, ৩ আগস্ট ২০২১
দুধ কিনতে না পেরে সন্তানদের ভাতের মাড় খাওয়াচ্ছেন মা-বাবা

রতন আলীর পরিবার

‘আমি ভূমিহীনদের একজন দিনমজুর। চল্লিশ দিন আগে আমার যমজ মেয়ে সন্তান হইছে। করোনাভাইরাসের কারণে টানা লকডাউন চলছে। এ জন্য কাজকর্ম সব বন্ধ, আয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। টাকার অভাবে যমজ দুই মেয়ের জন্য দুধ কিনতে পারছি না।’ অঝোরে কাঁদতে কাঁদতে কথাগুলো বলছিলেন ৩০ বছর বয়সী রতন আলী। 

রতন আলী কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের চরদিয়াড়পাড়া গ্রামের আমিন আলির ছেলে। ২৪ জুন স্থানীয় একটি ক্লিনিকে দুটি মেয়েসন্তানের জন্ম হয় তার। পরের জমিতে ঘর করে বসবাস করেন তিনি।

রতন আলী আরো বলেন, ‘চরম একটা বিপদে পড়ে গেছি। ৪০ দিনের অবুঝ শিশু ক্ষুধার জ্বালায় কাঁদে। শিশুরা মায়ের দুধ কম পাচ্ছে। তাদের মুখে দুধ কিনে তুলে দিতে পারি না। সন্তান জন্মের সময় আমার স্ত্রীকে ক্লিনিকে ভর্তি করতে হয়েছিল। তখন ধারদেনা করে ক্লিনিককে টাকা দিয়েছে। এই লকডাউনের মধ্যে কোনো কাজ নেই।’

তিনি বলেন, ‘বেকার বাড়িতে বসে আছি। দুধ কিনতে পারি না, শিশুদের ভাতের ফ্যান খাওয়াতে হয়। আমি দেশবাসীর কাছে সাহায্য চাই। যাতে ফুটফুটে দুই মেয়ে সন্তানকে দুধ কিনে খাওয়াতে পারি।’

রতন আলীর প্রতিবেশী কাওসার আলী বিশ্বাস বলেন, রতন একজন দিনমজুর। লকডাউনে কাজ না পাওয়ায় পুরো বেকার। টাকার অভাবে তিনি যমজ শিশুর জন্য দুধ কিনতে পারেন না। খুব কষ্টে দিন পার করছে পরিবারটি।

হোগলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরী বলেন, আমি তাদের খোঁজ নিয়েছি। তারা খুবই কষ্টে দিন পার করছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে যমজ শিশুর বাবাকে সহযোগিতা করেছি। আগামীতে সাহায্য করার জন্য চেষ্টা করব। তবে বিত্তবানদের উচিত অসহায় পরিবারটির পাশে দাঁড়ানো।

দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শারমিন আক্তার বলেন, লকডাউনে রতন আলী কর্মহীন হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে তিনি যমজ সন্তানের বাবা হয়েছেন। অর্থের অভাবের কথা শুনে আজ (মঙ্গলবার) যমজ কন্যাশিশুর পরিবারকে কিছু খাদ্য ও শিশুখাদ্য দেওয়া হয়েছে। 

রতন আলীকে সাহায্য করতে তার ব্যক্তিগত নম্বরে (০১৭৫৭৭৭০২৩৪) যোগাযোগ করতে পারেন। তবে এই নম্বরে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলা নেই।

দিনবদলবিডি/এমআর

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়