শনিবার

০৫ ডিসেম্বর ২০২০


২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৭,

১৯ রবিউস সানি ১৪৪২

দিন বদল বাংলাদেশ

প্রবাসীরা সাবধান!

কুয়েতে অনলাইনে অশালীন কিছু ছড়ালেই জেল, দেশে ফেরত

নিজস্ব প্রতিবেদক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:১৯, ২১ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ২১:১৪, ২১ অক্টোবর ২০২০
কুয়েতে অনলাইনে অশালীন কিছু ছড়ালেই জেল, দেশে ফেরত

সারাহ আল কান্দারি ও তার স্বামী -ফাইল ফটো

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্থির ছবি বা ভিডিও ক্লিপ ছড়িয়ে যদি কেউ গণ শালীনতা (পাবলিক ডিসেন্সি) ভঙ্গ করে তবে তার বিরুদ্ধে কঠোরতর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই ব্যাপারে কুয়েতের নাগরিক (সেলিব্রেটি বা সাধারণ) ও সেখানে বসবাসরত প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে সাবধানবাণী প্রচার করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাবলিক এথিক্স অ্যান্ড সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্ট। গতকাল রাতে আরবি দৈনিক আল-আনবার বরাত দিয়ে এ খবর দিয়েছে আরব টাইমস অনলাইন। 

দেশটির সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্ট সূত্র জানিয়েছে, এ ব্যাপারে পরিষ্কার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ঊর্দ্ধতন মহল থেকে। নির্দেশনা মোতাবেক- কোনো প্রবাসী অশ্লীল-আপত্তিকর ছবি বা ভিডিও প্রকাশ করে পাবলিক ডিসেন্সি ভঙ্গ করলে তাকে তার নিজ দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে এবং ওই ব্যক্তি যাতে ফের কুয়েতে প্রবশে করতে না পারে সেজন্য তার নাম-ধাম আঙুলের ছাপ নিষিদ্ধ ব্যক্তিদের তালিকায় যুক্ত করা হবে। 

আর যদি কোনো কুয়েতি এ ধরনের অপরাধ করে  সেক্ষেত্রে দুই ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রথমত অপরাধের মাত্রা গুরুতর না হলে অভিযুক্তকে আইন-শৃঙ্খলা বিভাগে ডেকে সতর্ক করা হবে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের অপরাধ না করার জন্য মুচলেকায় স্বাক্ষর রেখে ছেড়ে দেওয়া হবে। কিন্তু পাবলিক ডিসেন্সি ভঙ্গের অপরাধ গুরুতর হলে তাকে বিচারের জন্য আদালতে উপস্থাপন করা হবে।

সূত্র আরো জানায়, দেশটির সরকার তার নাগরিকদের ব্যক্তি স্বাধীনতার গ্যারান্টি দেয় কিন্তু কোনো অনভিপ্রেত আচরণ কিংবা অস্বাভাবিক ও লজ্জাজনক কোনো ছবি প্রকাশকে বরদাশত করে না। অবিবেচনাপ্রসূতভাবে বারবার দেশটির কৃষ্টি-সংষ্কৃতি, ঐতিহ্য, শালীনতা ও আইনের পরিপন্থি কর্মকাণ্ডের দ্বারা কেউ সীমালঙ্ঘণ করলেই কেবল তাকে উল্লেখিত অপরাধের আওতায় পাকড়াও করা হবে।  কুয়েতের ক্রিমিনাল সিকিউরিটি সেক্টর নামের প্রতিষ্ঠান এরই মধ্যে যারা সামাজিক মাধ্যমে অশালীন বিষয়বস্ত প্রকাশ করেছে তাদের একটি তালিকা তৈরি করেছে। সেই তালিকা ধরে পুঙ্খাণুপুঙ্খরূপে একে একে সবার কর্মকাণ্ড যাচাই করে অপরাধীদের তলব করা হবে। 

সারাহ আল কান্দারির ঘটনা
উল্লেখ্য, সামাজিক মাধ্যমে অশালীনতা প্রচারের অভিযোগে সম্প্রতি সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্ট কুয়েতি নাগরিক একজন নারীকে তার স্বামী আহমেদ আল আনজি ও শিশুসন্তানসহ গ্রেপ্তার করেছে। সামাজিক মাধ্যমে বেশ পরিচিত সারাহ আল কান্দারি নামের ওই নারী ও তার স্বামী স্ন্যাপচ্যাট-এ একটি ভিডিও আপলোড করেন যাকে দেশটির প্রচলিত আইন-কানুন মতে অশালীন বলে সাব্যস্ত করা হয়। তাদেরকে কয়েকদিন হাজতবাসও করতে হয়। পরে আদালতের নির্দেশে তারা ছাড়া পান প্রত্যেকে দুই হাজার দিনার (৬,৬০০ মার্কিন ডলার) অর্থ জামানতে। 

সারাহ আল কান্দারি

একই ধরনের অভিযোগে লেবাননের একজন সম্প্রচারকর্মীকে গ্রেপ্তারের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এছাড়া মাত্র একদিন আগে একজন ইরানি ফ্যাশন বিশেষজ্ঞকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে বেশ কিছু ছবি প্রকাশ করার জন্য যা কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মতে অশ্লীল। তাকেও ডিপোর্ট (দেশে পাঠিয়ে দেওয়া) করা হবে। 

আরো পড়ুন> কুয়েতের জাতি গঠনে বাংলাদেশিদের অবদান

বাংলাদেশিদের সতর্ক থাকার আহ্বান
কুয়েতের বর্তমান এই বাস্তবতার নিরিখে দেশটিতে বসবাসরত প্রায় সাড়ে তিন লাখ বাংলাদেশিকে এসব ক্ষেত্রে অবশ্যই সচেতন ও সাবধান থাকতে হবে বলে মনে করছেন অভিজ্ঞমহল। 

মধ্যপ্রাচ্যের ক্ষুদ্র অথচ তেলসমৃদ্ধ ও ধনী এই দেশটিতে দীর্ঘ সিকি শতাব্দীকাল চাকরি করার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন মিজান রহমান এ প্রসঙ্গে  দিনবদলিবিডি.কমকে বলেন, কোনো অবস্থাতেই কোনো ধরনের ভুল করা চলবে না আমাদের প্রবাসী রেমিটেন্স যোদ্ধা ভাইদের। এখন যা অবস্থা তাতে খোদ কুয়েতি নাগরিকদেরও রেহাই দেওয়া হচ্ছে না, প্রতিবেশী ইরানি, লেবাননি কোনো দেশের নাগরিকদেরও ছাড়া হচ্ছে না; যাদের আঞ্চলিকগত, সংস্কৃতিগত, ভাষাগত ও অন্যান্য ক্ষেত্রে বেশ প্রভাব রয়েছে দেশটিতে। তাই আমাদের সহজ-সরল প্রবাসী বাংলাদেশিরা যেন সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে ওই ধরনের অশালীন বা আপত্তিকর কিছু নিজেরাও আপ না করেন আর অন্যের দেওয়া এ ধরনের কিছুকে যেন লাইক বা শেয়ার না করেন। 

তিনি আরো বলেন, আমাদের পিঠ আমাদেরকেই বাঁচাতে হবে। সামাজিক মাধ্যমে ক্ষণিকের মজা করতে গিয়ে নিজের এবং দেশে রেখে যাওয়া স্ত্রী-সন্তান ও মা-বাবার ক্ষতি করা থেকে বেঁচে থাকতে হবে সবাইকে।

দিনবদলবিডি.কম/এআরকে
  

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়