মঙ্গলবার

০৯ মার্চ ২০২১


২৪ ফাল্গুন ১৪২৭,

২৪ রজব ১৪৪২

দিন বদল বাংলাদেশ

দীর্ঘ সময় কম্পিউটার ব্যবহারে শারীরিক সমস্যা ও সমাধান

লাইফস্টাইল ডেস্ক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: ২০:০২, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১   আপডেট: ২০:২৯, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১
দীর্ঘ সময় কম্পিউটার ব্যবহারে শারীরিক সমস্যা ও সমাধান

প্রতি এক ঘণ্টা কাজের ফাঁকে, পাঁচ মিনিট বিরতি নিন এবং...

বর্তমানে যুগে সব ধরনের পেশা/চাকরীতে ও পড়ালেখার কাজে দীর্ঘ সময় আমাদের কম্পিউটার ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে কম্পিউটার ব্যবহার না করা হলে তৈরি হতে পারে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা। যেমন-

আরো পড়ুন >>> নারী-পুরুষ পরস্পরের বন্ধু হতে পারে কি?

> দীর্ঘ সময় কম্পিউটার ব্যবহারে কারণে মাংসপেশির ওপর অতিরিক্ত চাপ পড়ে, রক্ত চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়। যার ফলে ঘাড়ব্যথা, কোমরব্যথা, ঘাড়ের মাংসপেশি শক্ত হয়ে যাওয়া, কাঁধ ও হাতব্যথা হতে পারে।

কোমরব্যথা

> অতিরিক্ত কম্পিউটার ব্যবহারের ফলে কনুই, কবজি, হাতব্যথাসহ ফুলে যাওয়া, সন্ধি শক্ত হয়ে যাওয়া, মাংসপেশি অবশ ও দুর্বল হতে পারে।

আরো পড়ুন >>> শিশুদের ইন্টারনেট আসক্তি: নিয়ন্ত্রণের ৭ উপায়

> কম্পিউটারের মনিটর ও চোখের দূরত্বের অসামঞ্জস্যের জন্য হতে পারে মাথাব্যথা, চোখব্যথা, চোখে ঝাপসা দেখা, পানি পড়া ইত্যাদি সমস্যা

এবার জেনে নেয়া যাক চেয়ার ও কম্পিউটার টেবিল যেমন হওয়া উচিত

 চেয়ার ও কম্পিউটার টেবিল যেমন হওয়া উচিত

> অফিস সাজানোর আগে একজন এর্গোনোমিকস এক্সপার্টের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

আরো পড়ুন >>> আপনি কি মিথ্যার অনুশীলন করছেন মোবাইলের মাধ্যমে?

> বসার চেয়ারের ডিজাইন এমন ভাবে করা উচিত, যেখানে ঘাড় সোজা ও পিঠ বিশ্রামে থাকবে, কোমরের পেছনে সাপোর্ট থাকবে, বসার সিট আরামদায়ক হবে, চেয়ারের উচ্চতা ঠিক করার জন্য সুবিধাজনক উপরে বা নিচে নামানুর ব্যাবস্থা থাকা উচিত, হাঁটু থেকে টেবিলের মধ্যে একটি ফাঁক থাকবে এবং পা ফ্লোরে লেগে থাকবে। মাউস ও কি-বোর্ড টেবিলের মাঝামাঝি রাখতে হবে যাতে কনুই ও হাত টেবিলের ওপর সাপোর্টে থাকে।

সমস্যা সমাধানে করণীয়:

কম্পিউটার ব্যবহারে শারীরিক সমস্যা ও সমাধান

প্রতি এক ঘণ্টা কাজের ফাঁকে, পাঁচ মিনিট বিরতি নিন এবং একটু হাঁটাহাঁটি করুন। কিছু হালকা ব্যায়াম করুন, এতে মাংসপেশিতে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকবে । যেমন-

> ডানে, বাঁয়ে, সামনে, পেছনে ঘাড়কে হেলিয়ে টান টান শক্ত করে পাঁচ সেকেন্ড ধরে রাখুন এবং ছেড়ে দিন। এভাবে ৫-১০ বার করুন, এতে ঘাড়ব্যথা হবে না।

আরো পড়ুন >>> বুকের দুধ খাওয়ানো: শিশু ও মায়ের জন্য রয়েছে যেসব উপকার

আরো পড়ুন >>> ইউরিন ইনফেকশনের লক্ষণ ও প্রতিকার

> দুই হাত সোজা করে শক্তভাবে মুঠ করুন। এভাবে পাঁচ সেকেন্ড ধরে রাখুন ও ছাড়ুন। এভাবে ৫-১০ বার করুন, এতে কবজি ও হাতের আঙুল ব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন।

> সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে দুই হাত কোমরের পেছনে রেখে যতটুকু সম্ভব ধনুকের মতো বেঁকে যান এবং আবার সোজা হোন। এভাবে ৫-১০ বার করুন, এতে আপনার কোমরে মাংসপেশি স্ট্রেচিং হবে এবং সহজে আপনি কোমরব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন।

দিনবদলবিডি/জিএ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়