শনিবার

২৮ মে ২০২২


১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,

২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

দিন বদল বাংলাদেশ

দুনিয়ার সবচেয়ে ভয়ংকর রেসিপি, রান্নার জন্য লাগবে লাইসেন্স!

লাইফস্টাইল ডেস্ক || দিনবদলবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:৩৫, ২৬ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৭:৪৪, ২৬ জানুয়ারি ২০২২
দুনিয়ার সবচেয়ে ভয়ংকর রেসিপি, রান্নার জন্য লাগবে লাইসেন্স!

স্টিমড পাফার

আপনি কি চরকির ‘ঊনলৌকিক’ সিরিজের প্রথম গল্প ‘মরিবার হলো তার স্বাদ’ দেখেছেন? সেখানে এই রেসিপিটার উল্লেখ আছে। একটা স্পেশাল ব্যাঙ্কোয়েট, নাম স্টিমড পাফার। দেখা যায়, একটা গোপন রেস্তোরাঁয় মাসে একবার সার্ভ করা হয় স্টিমড পাফার। জাপান থেকে আনা বিশেষ প্রশিক্ষিত শেফ রান্না করে সেটা। কয়েকজন বিশেষ অতিথি উপস্থিত থাকে সেই আয়োজনে। তাদের প্রত্যেকের পাতে দেওয়া হয় একটি করে স্টিমড পাফার।

সব কটির পিত্ত নিখুঁতভাবে অপসারণ করা, কেবল একটির ছাড়া! একটি পাফার মারাত্মক বিষাক্ত। সেটির গায়ে মৃত্যুর পয়গাম লেখা। কিন্তু কেউ জানে না, কোনটা সেটা। কার পাতে পড়েছে। অনেকটা লটারির মতো বা রাশান রুলেটের মতো। প্রতি সিটিংয়ে একজন মারা যাবে, কিন্তু ডিশ শেষ করার আগে কেউ জানে না, সে কে! এ রকমই একটি রেসিপি ঘিরে লেখা হয়েছে ‘মরিবার হলো তাঁর স্বাদ’-এর গল্প।

এত কথা বলার উদ্দেশ্য, এই লেখার বিষয়টির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া। কেননা, এই লেখার বিষয়টিও যে স্টিমড পাফার। জাপানি ভাষায় এর নাম ‘ফুগু’। ইংরেজি নাম ‘পাফার ফিশ’। বাংলায় আমরা যাকে বলি পটকা মাছ। এটি মূলত একটি জাপানি খাবার।

জাপানের ওসাকার বাজারে বিক্রি হচ্ছে ফুগু মাছ- ছবি: উইকিমিডিয়া কমনস

জাপানের শিমনোসেকি জাতির লোকেরাই প্রথম খাওয়া শুরু করে এটি। এরপর ছড়িয়ে পড়ে সবখানে। বিশ্বের সবচেয়ে ভয়ংকর খাবারগুলোর মধ্যে অন্যতম। সামুদ্রিক মাছ। অত্যন্ত সুস্বাদু। জাপানে ফুগু ডিশ সবচেয়ে দামি খাবারগুলোর মধ্যে অন্যতম। কিন্তু ফুগু বা পাফার বা পটকা, যা-ই বলুন না কেন, এটা খেতে যেমন সুস্বাদু, তার চেয়েও ভয়ানক বিষাক্ত।

দুনিয়ার সবচেয়ে বিষাক্ত জীবদের মধ্যে অন্যতম ‘ফুগু’। এদের পিত্তথলিতে লুকানো থাকে টেট্রোডেটক্সিন নামের মারাত্মক বিষ। এ কারণে রান্নার সময় পিত্তথলিটা খুব সাবধানে কেটে ফেলে দিতে হয়। ক্ষুদ্র পিত্তথলি। কাটতে গিয়ে একটু ছোঁয়া লেগেছে কি, ফেটে সমস্তটাই বিষাক্ত হয়ে যাবে। আর সেই রেসিপি খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নিশ্চিত মৃত্যু! কয়েক মিনিটে...বলা হয়, গোখরা সাপের চেয়ে ১০ গুণ বিষাক্ত পাফার মাছের পিত্ত।

টোকিওর গভর্নরের দেওয়া পাফার ডিশ রান্নার লাইসেন্স- ছবি: উইকিমিডিয়া কমনস

এ জন্য বিশেষ ধরনের শেফ ছাড়া জাপানে পাফার ডিশ নিষিদ্ধ। যদি নিতান্তই মৃত্যু না ঘটে, খুব সামান্য পরিমাণ পিত্তরসের উপস্থিতিতে হতে হবে প্যারালাইজড। তাই এই খাবার কেবল লাইসেন্সপ্রাপ্ত শেফরাই রান্না করতে পারেন। লাইসেন্স ছাড়া রান্না করা যাবে না এই পদ।

সূত্র: প্রথম আলো

দিনবদলবিডি/জিএ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়