ভয়াবহ দাবানলে পর্তুগালে ৬৫৯ জনের মৃত্যু

দিন বদল বাংলাদেশ ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ দুপুর ১২:২৩, সোমবার, ১৮ জুলাই, ২০২২, ৩ শ্রাবণ ১৪২৯
সংগৃহীত ছবি

সংগৃহীত ছবি

দক্ষিণ-পশ্চিম ইউরোপ ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে। ছড়িয়েছে ফ্রান্স, পর্তুগাল, স্পেন, গ্রিস, ক্রোয়েশিয়া ও মরক্কোতেও। গত সপ্তাহ থেকে চলা ওই দাবানলে শুধু পর্তুগালেই মৃত্যু হয়েছে ৬৫৯ জনের। রোববার (১৭ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

পর্তুগালের সরকার বলছে, গত সপ্তাহে তাপদাহে ৬৫৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের বেশির ভাগই বয়স্ক। বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, পর্তুগালের দাবানল আপাতত নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আবহাওয়ার এমন বিরূপ পরিস্থিতির জন্য জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবকে দায়ী করেছেন আবহাওয়াবিদরা।

আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, হাজার হাজার মানুষকে দাবানল থেকে বাঁচাতে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। দাবানলে পুড়ছে হাজার হাজার হেক্টর জমি ও বাড়িঘর।

গত বৃহস্পতিবার পর্তুগালের মধ্য ও উত্তরাঞ্চলের পাঁচটি এলাকায় ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে, যা জুলাই মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ।

গত বৃহস্পতিবার পর্তুগালের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মার্তা টেমিডো বলেন, দাবানলের কারণে স্বাস্থ্যব্যবস্থা ‘উদ্বেগজনক’ পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছে।

দক্ষিণ-পশ্চিম ফ্রান্সে গত মঙ্গলবার থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১০ হাজার ৫০০ হেক্টর জমি ধ্বংস হয়েছে। দাবানলের কারণে ১৪ হাজার মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। গত শুক্রবার দক্ষিণ-পশ্চিম ফ্রান্সে তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তাপমাত্রা রেকর্ড ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে সতর্ক করেছে দেশটির আবহাওয়া অধিদপ্তর। গত বৃহস্পতিবার স্পেনে ৪৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

মরক্কোতেও ছড়িয়েছে দাবানল। ১ হাজার ৩০০ জন মানুষকে বাড়ি ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দাবানল নিয়ন্ত্রণে আরও দমকল কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। দাবানলে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে লারাচে প্রদেশ।

এদিকে যুক্তরাজ্যেও তাপমাত্রা বাড়ছে। যুক্তরাজ্যের তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছাতে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। রাজধানীতে যাত্রীদের প্রয়োজনীয় ভ্রমণ ছাড়া বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে ট্রান্সপোর্ট ফর লন্ডন।

দিনবদলবিডি/আরএজে

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়