যে কারণে পাল্টে গেল ‘মাঙ্কিপক্সের’ নাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || দিন বদল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ সকাল ০৯:০৮, বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

মাঙ্কিপক্স নামটি নিয়ে অভিযোগ অনেক দিনের। শব্দটি বর্ণবাদী ও কলঙ্কজনক উল্লেখ করে অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে ভাইরাসটির নাম পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। অবশেষে মাঙ্কিপক্সের নতুন নাম দেওয়া হয়েছে। রোগটির নতুন নাম এখন থেকে এমপক্স।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) সোমবার (২৮ নভেম্বর) এক ঘোষণায় এ তথ্য জানিয়েছে।

ঘোষণায় বলা হয়, মাঙ্কিপক্স ভাইরাসটি এখন থেকে এমপক্স নামে পরিচিত হবে বিভিন্ন দেশের বিশেষজ্ঞ ও সাধারণ মানুষের সঙ্গে আলোচনার পর এখন এই ভাইরাস এবং রোগের নাম এমপক্স রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। নামটি ইংরেজি ভাষাসহ অন্যান্য ভাষায়ও সহজেই ব্যবহার করা যাবে।

১৯৫৮ সালে ডেনমার্কে গবেষণার জন্য রাখা বানরের মধ্যে এই ভাইরাসটি প্রথম শনাক্ত হয়েছিল বলে এর নামকরণ হয় মাঙ্কিপক্স। কিন্তু এই রোগটি অনেক প্রাণীর মধ্যে পাওয়া যায়, যার মধ্যে বেশির ভাগই ইঁদুর। মানবদেহে সর্বপ্রথম ১৯৭০ সালে মাঙ্কিপক্স ভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল। তখন থেকেই এ ভাইরাসের নতুন নাম দেওয়ার দাবি ওঠে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর ১১০টি দেশের প্রায় ৮১ হাজার ১০৭টি মাঙ্কিপক্স আক্রান্তের ঘটনা ঘটে এবং এতে আক্রান্ত হয়ে ৫৫ জনের মৃত্যু হয়।

দিনবদলবিডি/আরএজে

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়